সোমবার, ১১ই জুন, ২০১৮

উড়ন্ত উড়ান থেকে পটি পড়ল ভারতেই

নিউজ টাইম কলকাতা ডট কম
জানুয়ারি ৭, ২০১৬
news-image

চলন্ত প্লেন থেকে বরফের চাঁই পড়ে আহত ভোপালের বেশ কয়েকজন। এই ঘটনা প্রথমবার ঘটল ভারতে। পরে অবশ্য জানতে পারা গেছে, ওই বরফের চাঁই আসলে পটি এবং প্রস্রাব। শুনতে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি। প্লেনের বাথরুমের মধ্যে জমে থাকা সমস্ত বর্জ্য প্লেন থামার পর পরিষ্কার করা হয়ে থাকে। কিন্তু এই ভাবে চলন্ত প্লেন থেকে বর্জ্য কখনওই পরিষ্কার করা হয় না। তাহলে কীভাবে এই ঘটনা ঘটল? তা এখনও জানতে পারা যায়নি। কিন্তু সেই বর্জ্য পদার্থগুলি কীভাবে বরফে পরিণত হল? অ্যাভিয়েসন অথোরিটির তথ্য অনুযায়ী, অতিরিক্ত ঠান্ডার জন্যই বর্জ্য জমে বরফ হয়ে গিয়েছিল।

বছর ৬০-এর একজন বয়স্ক মহিলা কাঁধের ওপরে একটি বরফের চাঁই পড়ে। যার ফলে আহত হন তিনি। এই ঘটনা, ঘটনাস্থল থেকে ২৫ ফুট দূরে থাকা একটি সরকারি স্কুলের ছাদ থেকে দেখতে পান একজন শিক্ষক। হঠাৎ সেই ছাদের ওপরেই একটি বড় মাপের বরফের টুকরো ফেলা হয়। প্রথমে ছাদে ঠোক্কর খেয়ে তাঁর মাথায় গিয়ে লাগে পটির বরফটি। মহিলাটির প্রবল আর্তনাদ শুনে ছুটে যান এলাকাবাসীরা। এরপর গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে।

তবে ওই চাঁই বরফ ছিল নাকি নীল বরফ ছিল তা নিয়ে বিতর্ক চলছে। এই নীল বরফ হল আসলে অ্যাভিয়েশনের একটা চলতি কথা। যা প্লেন চলাকালীন ফেলা হয়ে থাকে। তবে তা কোনও ফাঁকা জায়গাতে গিয়েই ফেলা হয়, কারোর মাথায় নয়। ঘটনার তদন্তের পর যদি জানা যায়, যে প্লেন থেকে নীল বরফ ফেলা হয়েছিল, তাহলে অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষকে আহত মানুষদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।