বুধবার, ১৩ই জুলাই, ২০১৬

যোগে কি মুদ্রাস্ফীতির যন্ত্রণা লাঘব হবে? মোদীকে কটাক্ষ শিবসেনার

নিউজ টাইম কলকাতা ডট কম
জুন ২৩, ২০১৬
news-image

মু্ম্বই: নরেন্দ্র মোদীকে প্রশংসার ছলে খোঁচা শিবসেনার। ২১ জুন ধুমধাম করে দেশে দেশে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালনে সাফল্যের জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করেও তাদের প্রশ্ন, যোগে কি মুদ্রাস্ফীতি কমবে! মানুষের সুরাহা হবে!

দলীয়  মুখপত্র সামনা-য় শিবসেনা বলেছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসা প্রাপ্য। ১৩০টি দেশকে যোগ পালনে সামিল করিয়েছেন তিনি। গোটা বিশ্ব মাথা নুইয়ে দেয় যদি কেউ তাকে নোয়াতে পারে। যোগদিবস কর্মসূচির মাধ্যমে ১৩০টি দেশকে শুইয়ে দিয়েছেন মোদী। এখন দরকার পাকিস্তানকে চিরতরে শুইয়ে দেওয়ার। একমাত্র অস্ত্রের জোরেই সেটা করা সম্ভব। পাকিস্তানকে পাকাপাকি শবাসনে  (এমন এক যোগাসন যাতে এমনভাবে শুয়ে থাকতে হয় যে দেখে মৃত  বলে মনে হয়) পাঠিয়ে দিতে হবে।

অ-বিজেপি শাসিত দলগুলির মুখ্যমন্ত্রীরা মোদীর বিরোধিতা করতে পারেন, তবে যোগ একটি বিজ্ঞান, তাই তার বিরোধিতা করা উচিত নয় বলেই মত শিবসেনার। তবে তারা বলেছে, যোগের মাধ্যমে অনেক কিছুই পাওয়া যায়। কিন্তু নিত্যদিনের জীবনে যোগ কি চড়া মুদ্রাস্ফীতি, দুর্নীতির যন্ত্রণার উপসম হতে পারে? এ ব্যাপারে ব্যাখ্যা পেলে ভাল হত।

প্রসঙ্গত, মহারাষ্ট্র ও কেন্দ্রে মোদীর এনডিএ সরকারে থেকেও তার সমালোচনা করে চলেছে শিবসেনা। তাদের নিশানায় রয়েছে বিজেপিও। মহারাষ্ট্রে বিধানসভা ভোটের  আগে আসন বন্টন নিয়ে মতভেদের জেরে ২০১৪-র অক্টোবর তাদের জোট ভেঙে যায়। ভোটের পর ফের তারা একসঙ্গে হলেও ছোট শরিকের স্থান দেওয়া হয়েছে শিবসেনাকে। তারপর থেকেই সুযোগ পেলেই মোদী, বিজেপি-কে নিশানা করে চলেছে তারা।